মাস্ককে পিছনে ফেলে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ” বার্নাড আর্নল্ট “

barnard arnault

গ্লোবাল বিলিনিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী বিশ্বের শীর্ষ ধনীর তালিকায় এলন মাস্কের নাম টি শোভা পেলেও এবার স্তান্ টি সবার অজান্তে হারিয়ে ফেলতে বসেছে মাস্ক। একই সময়ে স্তান টি দখল করে নিয়েছেন ফ্রান্সের ব্যবসায়ী এল ভি এম এইচ এর কর্ণধার বার্নাড আর্নল্ট

Advertisement
। গ্লোবাল বিলিনিয়ার এর তালিকা অনুযায়ী ২০২২ সালের এলন মাস্কের মোট সম্পদের পরিমান দাড়িয়েছে $১৪৮.৬ বিলিয়ন ডলার তারছেয়ে ৭২ বছর বয়সী আর্নল্টের সম্পদের পরিমান প্রায় $২০৭.৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার যা এলন মাস্কের ছেয়ে প্রায় $৫৯.২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বেশি।

ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলের শহর রোমেক্সের এক ব্যবসায়িক পরিবারে ১৯৪৯ সালে জন্ম গ্রহন করেন বিশ্বের শীর্ষ ধনী আর্নল্ট। তার পরিবারে প্রধান ব্যবসা ছিল ভবন নির্মান। ফ্রান্সের বিখ্যাত প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় Ecole polytechnique থেকে স্নাকোত্তর সম্পন্ন করার পর আর্নল্ট পারিবারিক ব্যবসা প্রতিষ্টানে যোগ দেন। ১৯৭৮ সনে ওই কোম্পানির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি। এরপর তিনি ৬ বছর দেনার দায়ে ডুবতে বসা বিখ্যাত ফ্যাশনস কোম্পনী Dior কিনে নেন। Dior দেউলিয়া হয়ে পড়লেও এটি ছিল পুরো ফ্রান্সের অন্যতম জনপ্রিয় ব্র্যন্ড ফলে আর্নল্ট এর হাত ধরে কোম্পানীটি খুব দ্রুত ঘুরে দাড়ায়। এক সময় বিশ্বের শীর্ষস্তানীয় বিলাসবহুল পন্যের ব্র্যান্ড হিসাবে সবার মন জয় করে নেয় কোম্পানীটি। ১৯৮৯ সনে আর্নল্ট তার হাতে থাকা অন্য কোম্পানীগুলোকে একীভুত করে গঠন করেন গ্রুপ অপ কোম্পানী এবং তার এই গ্রুপ অব কোম্পানী নাম হয় LVMH । এই গ্রুপের অধিকাংশ শেয়ার নিজের হাতে রাখায় তিনি নির্বাচিত হন চেয়ারম্যান ও শীর্ষ নির্বাহী কর্মকর্তা।

শীর্ষ ধনী আর্নল্ট

LVMH এর উৎপাদিত পণ্য গুলোর অন্যতম উল্লেখযোগ্য হল শ্যামপেইন, গড়ি, গহনা, পারফিউম, চামড়াজাত পোষাক, চামড়ার ব্যাগ, ফ্যাশনাবল বিলাসবহুল পোষাক, প্রসাধনী এবং আরো হরেক রকম পণ্যের এক বিশাল সমাহার। বর্তমানে সারাবিশ্বে ৫৫০০ এর ছেয়ে বেশি শোরুম বা আউটলেট রয়েছে কোম্পানীটি। ফ্রান্স ছাড়াও ইউরুপের বিভিন্ন দেশে নিজেদের কোম্পানীর শোরুম খোলে কোম্পানীটি। এছাড়াও চীনের বেইজিংয়ে তাদের কোম্পানীর অন্তরভুক্ত কোম্পানী LOUIS VUITTON এর এক বিশাল শোরুম খোলে কোম্পানিটি। বর্তমানে আমেরিকার বাজারে ও দাপিয়ে বেড়াছছে এল বি এম এইচ এর বিলাসী পন্যগুলো। এইভাবে এশিয়ার বাজারেও নিজের আধিপত্যের জানান দেন ইউরপের এই ধনকুবের আর্নল্ট।

আরো পড়ুনঃ মুসলিম বিশ্বের সবছেয়ে বড় দশটি অর্থনীতির দেশ

জানা গেছে গত বারের নির্বাচিত বিশ্বের সবছেয়ে বড় ধনীর তালিকায় ছিলেন এলন মাস্ক। কিন্তু তার কোম্পানী টেসলার এর শেয়ারের দাম পড়ে যাওয়ায় এলন মাস্ক শীর্ষ স্তানের মর্যাদা হারান।

শীর্ষ স্তানটি দখল্ করে নেয় ফ্রান্সের ধন কুবের আর্নল্ট। কিছু বছর আগেও যার অবস্তান ছিল এই তালিকায় ৯ম ১০মে। বিশ্বের শীর্ষধনী এলন মাস্কে টপকে যাওয়া কিন্তু মোটেই সহজ কাজ ছিলনা কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর্নল্ট তা করে দেখিয়েছে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shares